• সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০১:১২ পূর্বাহ্ন

কেন বন্ধ হল বাংলাদেশ থেকে বিদেশে চ্যানেলগুলো ঘটনা আজ উন্মোচন।

রিপোর্টারঃ / ২৫০ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছেঃ শনিবার, ১ জানুয়ারী, ২০২২

কেন বন্ধ হচ্ছে বাংলাদেশ থেকে বিদেশি চ্যানেল গুলো সম্পর্কে জানতে চোখ রাখুন আমাদের এই পাতায় আসলে বাংলাদেশ অনেককাল আগে থেকে বাইরের দেশের চ্যানেলগুলো এবং বাংলাদেশের চ্যানেল গুলো সম্মিলিত ভাবে তাদের নাটক সিনেমা গানগুলো কিংবা সংবাদপত্রগুলো প্রচার করতে চাই এসব প্রতারণার মাধ্যমে যে বিজ্ঞাপনগুলো দেওয়া হতো সেগুলোর মাধ্যমে কিছু অর্থ উপার্জন করা হয় কিন্তু বাংলাদেশে বাইরের দেশের চ্যানেলগুলোর এত পরিমান বিজ্ঞাপন দিয়েছিল যেগুলোর মাধ্যমে বাংলাদেশের চ্যানেলগুলো আস্থা হারিয়ে ফেলেছেন তাদের টিআরপি অনেক গুণে বেড়ে গিয়েছিল এবং বাংলাদেশের টিআরপি একদম কমে গিয়েছিলো মানে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করার কথা ছিল কিন্তু তা নয়

 

 

 

ইন্ডিয়ান চ্যানেলগুলো এত বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করার পেছনে রয়েছে বেশকিছু ধারাবাহিকতার নাটক যেগুলো গ্রামীণ সমাজ নিয়ে কিংবা শহরে জীবন নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর জীবনধারা কিংবা বউ-শাশুড়ির জীবনধারা এবং পরিবার পরিবার বিচ্ছেদ পরিবার গঠন ইত্যাদি বিষয়গুলো নিয়ে এসব সিনেমা-নাটক তৈরি করা হয়েছিল যেগুলো বাঙালির নারীদেরকে আকৃষ্ট করে তুলেছে তাদের চ্যানেলগুলোর প্রতি বাঙালি নারীরা বিদেশি চ্যানেল গুলোর প্রতি অনেক বেশি আকৃষ্ট হয়েছিল যার ফলে বাংলাদেশের অনেক স্বনামধন্য চ্যানেলগুলো টিআরপি অনেক কমে গিয়েছিল বাংলাদেশের চ্যানেলগুলো অনেকাংশেই তাদের চাহিদা কমে গেছে এসব চাহিদাগুলো পূরণ করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ থেকে বিদেশে চ্যানেলগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে.

 

 

 

বাংলাদেশ বাংলাদেশের চ্যানেল গুলো দিয়ে যে অর্থ উপার্জন করা হয় সেগুলো বাংলাদেশেই রয়ে যায় কিন্তু বিদেশি চ্যানেল গুলো দিয়ে যে অর্থ উপার্জন করা হয় সেগুলো বিদেশি কোম্পানির নিয়ে যায় যদিও কিছু অংশ বাংলাদেশকে দেয় তবে তা ব্যাপকভাবে বাংলাদেশের জন্য ক্ষতি যদি বাংলাদেশে চ্যানেলগুলোই বাংলাদেশি অর্থোপার্জন করে তাহলে বাংলাদেশ অনেক উন্নত হয়ে উঠবে তা ছাড়া বিদেশি চ্যানেল গুলো বিদেশি চ্যানেলগুলোর গণ্ডায় হারিয়ে যাচ্ছে একটা সময় এমন হয়ে যাবে যে বিদেশে চ্যানেলগুলোর ফলে বাংলাদেশের চ্যানেলগুলো আর আগের মতো কেউ দেখবে না এত বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে বিদেশি চ্যানেল গুলো বাংলাদেশের চ্যানেলগুলো এখনই কেউ আর দেখতে চায় না যদিও মানে গুণের বাংলাদেশের চ্যানেলগুলো অনেক বেশি উন্নত বাংলাদেশের টিআরপি বাড়ানোর মূল উদ্দেশ্যই হলো বাইরের দেশের চ্যানেলগুলো বন্ধ করে দাও তাছাড়াও বাজার বন্ধ করে দেওয়ার জন্য বেশকিছু যৌক্তিক কারণ রয়েছে যেগুলো পরবর্তী নিউজে আপনারা জানতে পারবেন.

 

 

যখন থেকেই বাংলাদেশি চ্যানেলগুলো সম্প্রতি লাভ করা শুরু করেছিল তখন থেকেই এগুলো বেড়ে উঠেছিল কিন্তু এই আকস্মিক বাইরের দেশে চ্যানেলগুলোর প্রতি ভালবাসায় বাংলাদেশী চ্যানেল গুলো হারিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের ঐতিহ্য বাংলাদেশের স্মৃতি বাংলাদেশের যে গৌরবময় কিছু ঘটনা বলি সেগুলো হারিয়ে যাচ্ছে বিদেশে চ্যানেলগুলো গণ্ডায় যখন থেকে আবার বাইরে ধরে চ্যানেলগুলো বন্ধ হয়ে যাচ্ছে তখন থেকে বাংলাদেশের চ্যানেলগুলো আবার জনপ্রিয়তা লাভ করেছে এই জনপ্রিয়তা লাভ করার জন্যই বিদেশি চ্যানেল বন্ধ থাকাটাই অনেক ভালো.


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন